Site icon Chandpur Probaha | চাঁদপুর প্রবাহ

শাহরাস্তিতে করোনা রোগী শনাক্তের পর উৎকণ্ঠা : ৪০জনের নমুনা সংগ্রহ

ফয়েজ আহমেদ :
শাহরাস্তি উপজেলায় প্রথম করোনা (কোভিড-১৯) রোগী শনাক্তের পর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা বিরাজ করছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত হাসপাতালের কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ গত ২ দিনে ৪০জন করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দিয়েছেন।

জানা যায়, লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ হতে তথ্য গোপন করে চিকিৎসা নিতে আসা এক রোগীর আক্রান্তের খবরে শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে উৎকণ্ঠা বিরাজ করছে। রোগী হাসপাতালের ৭নং বেডে ২ দিন অবস্থান করার পর ওই বেডে পরবর্তী ২ দিনে আরও ২জন রোগী চিকিৎসা নিয়েছে। আক্রান্ত ব্যক্তি শাহরাস্তি উপজেলায় করোনার সোর্স কিনা অপেক্ষমান ৪০টি নমুনার রিপোর্ট আসার পর তা জানা যাবে ।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, গত শনিবার (২ মে) শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লক্সে লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজেলার পানিয়ালা গ্রাম হতে ৫০ বছর বয়সী (নাম প্রকাশ করা হলো না) এক রোগী গ্যাস্ট্রিক ও পেট ব্যথা নিয়ে চিকিৎসার জন্য আসে। রামগঞ্জ উপজেলায় করোনা আক্রান্ত রোগী থাকায় পরদিন ওই রোগীর নমুনা সংগ্রহ করা হয়। মঙ্গলবার সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হতে ওই রোগীর করোনা পজেটিভ বলে জানানো হয়।

খবর পেয়ে সকালেই শাহরাস্তি থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহ আলমের নেতৃত্বে পুলিশ ওই রোগীর শ্বশুরবাড়ি শাহরাস্তি পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের উপলতা গ্রামের শীল বাড়ি লকডাউন ও বিভিন্ন বাজারে ওই বাড়ির লোকদের পরিচালিত সেলুনগুলো বন্ধ করে দিয়েছে।

হাসপাতালের আতংকগ্রস্থ কর্মচারীরা নাম প্রকাশ না করার সূত্রে জানান, রামগঞ্জের ঠিকানা দেখার পরও রোগীকে শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করিয়ে হাসপাতালের চিকিৎসক ও কর্মচারিদের আক্রান্তের ঝুঁকিতে ফেলা হয়েছে।

লকডাউন চলাকালে রামগঞ্জের সাথে শাহরাস্তি উপজেলার ভিন্নপথে গোপনে আসা রোগীকে কেন ভর্তি করা হয়েছে তার সদুত্তোর কেউ দিতে পারেনি। এ ব্যপারে বক্তব্য জানতে শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. প্রতীক সেনের মুঠোফোনে বারবার চেষ্টা করেও বন্ধ পাওয়া গেছে।

শাহরাস্তি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এ পর্যন্ত ৭০জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এর আগে ৩০জনের নমুনার রিপোর্ট দেয়া হয়েছে। যার মধ্যে ১জন পজেটিভ ও ২৯জন নেগেটিভ পাওয়া গেছে। বাকী ৪০টি নমুনা অপেক্ষমান রয়েছে। যদিও আক্রান্ত ব্যক্তি বর্তমানে কুমিল্লায় চিকিৎসাধীন থাকায় চাঁদপুরের আক্রান্তের তালিকায় তার নাম নেই।

শেয়ার করুন
Exit mobile version