এক শিশুকে বাঁচাতে গিয়ে আরেক শিশুরও মৃত্যু

তালহা জুবায়ের :
বাড়ির পাশে খেলা করছিল ৩ বছরের শিশু রাবেয়া আক্তার ও ৫ বছরের শিশু মো. বোরহান। খেলাধুলার এক পর্যায়ে রাবেয়া পুকুরে পড়ে যায়। রাবেয়াকে পানিতে হাবুডুবু খেতে দেখে তাকে বাঁচাতে পুকুরে ঝাঁপ দেয় বোরহান। তবে পানি থেকে আর বেঁচে ফেরা হয়নি তাদের। শিশু দু’জনকে পুকুর থেকে উদ্ধার করে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত বলে ঘোষণা করেন।

সোমবার দুপুরে এমনই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছে শরীয়তপুরের সখীপুর উপজেলার দক্ষিণ তারাবুনিয়া গ্রামে। মৃত দুই শিশু হলো- আলী আহমেদ প্রধানের ছেলে মো. বোরহান (৫) ও একই বাড়ির ইদ্রিস আলী খাঁর মেয়ে রাবেয়া আক্তার (৩)। তারা দুজনে বাড়ির সম্পর্কে চাচাতো ভাই-বোন ছিলেন।

শিশু বোরহানের চাচাতো ভাই ইউসুফ আলী বলেন, সকালে বাড়ির পাশে খেলাধুলা করছিল তারা। হঠাৎ করে রাবেয়া পুকুরে পড়ে গেলে তাকে উদ্ধার করতে গিয়ে বোরহানও পানিতে পড়ে যায়। দীর্ঘ সময় ধরে তাদের কোন খোঁজ না পেয়ে পরিবারের সদস্যরা বাড়ির আশপাশে খোঁজা শুরু করে। এক পর্যায়ে তাদেরকে পুকুরের পানিতে দেখতে পেয়ে দ্রুত উদ্ধার করে চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হলে ডাক্তার তাদের মৃত বলে ঘোষণা করেন। এই ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া মেনে এসেছে।

চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালের কর্তৃব্যরত চিকিৎসক ডা. নুর হোসেন বান্না বলেন, শিশু দু’জনকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে আমরা পরীক্ষা করে তাদের মৃত পেয়েছি। ধারণা করছি, হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই তারা মৃত্যুবরণ করেছে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন