চাঁদপুরের পদ্মা-মেঘনায় চাঁদা তোলাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে আহত ১৫

শরীফুল ইসলাম :
চাঁদপুর সদর উপজেলার রাজরাজেশ্বর ইউনিয়নে ট্রলার ও বলগেট থেকে চাঁদা উঠানোকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে কমপেক্ষে ১৫জন আহত হয়েছেন। সোমবার সকালে লক্ষ্মীরচর এলাকায় এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে গুরুতর আহত অবস্থায় চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে ৮জন চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

গুরুতর আহতরা হলেন : জসিম হাওলদার (৪০), আমেনা আক্তার (৩৫), ইউসুফ হালদার (৬০), জান্নাত (১৩), সেলিম হাওলাদার (২২), ওয়াজউদ্দিন হাওলাদার (৪০) ও হাসিনা আক্তার (২৫)। অন্যজনের নাম জানাতে পারেনি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

আহত জসিম হাওলাদার বলেন, লক্ষ্মীরচরে দীর্ঘদিন ধরে বলগেট ও ট্রলারে চাঁদা তোলা হচ্ছে। ইউনিয়ন পরিষদের অনুমতি নিয়ে দুই পক্ষ দীর্ঘদিন চাঁদা তুলছে। আর এই চাঁদা তুলতে বাধা দেওয়ায় আমাদের উপর রাজরাজেশ্বর ইউপি মেম্বার মাসুদ পারভেজ রনির নেতৃত্বে লোকজন হামলা চালায়। তারা আমাদের বাড়িতে হামলা চালিয়ে আমাদের বউ ও মেয়েদের গুরুতর আহত করে।

এ বিষয়ে রাজরাজেশ্বর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হযরত আলী বেপারী জানান, মূলত হামলার ঘটনাটি আমার ইউনিয়নে হয়নি। সবচেয়ে বড় বিষয় হলো ট্রলার ও বলগেট থেকে ইউনিয়ন পরিষদ চাঁদা তোলার অনুমতিপত্র দেইনি। তারা জাহাজ মালিক সমিতির অনুমতি নিয়ে চাঁদা তোলার কাজটি করে আসছে। এ ঘটনায় আমার ইউনিয়নের কেউ জড়িত থাকলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হোক।

চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. নাসিম উদ্দিন জানান, বলগেট ও ট্রলার থেকে টাকা উত্তোলনকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ বিষয়ে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন