চাঁদপুরে এক রাতে দুই বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি

সুজন পোদ্দার :
চাঁদপুরের কচুয়া-কালিয়াপাড়া সড়কের আমুজান ও আশ্রাফপুর গ্রামে দু’টি বাড়িতে শুক্রবার রাতে দুধুর্ষ ডাকাতি সংঘটিত হয়েছে। সংঘবদ্ধ ডাকাত দল ওই দুটি বাড়ি থেকে নগদ প্রায় ৫ লাখ টাকা ও ২৫ ভরি ওজনের স্বর্ণালঙ্কার লুটে নেয়।

আমুজান তালুকদার বাড়ির হোমিও ডা. রুবেল বলেন, রাত আড়াইটার দিকে আমার বাড়ির কলাপসিবল গেইটে তালা ভেঙ্গে ১০-১২জনের সংঘবদ্ধ মুখোশধারী ডাকাত দল অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ঘরে প্রবেশ করে পরিবারের সকলকে মারধরসহ দড়ি দিয়ে হাত-পা বেঁধে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে আলমারির তালা ভেঙ্গে নগদ ৪ লক্ষ টাকা ও ৮ ভরি ওজনের স্বর্ণালঙ্কার ও ২টি স্মার্ট ফোন নিয়ে যায়।

একই দিন রাত সাড়ে ১২টার দিকে একই কায়দায় আশ্রাফপুর চৌধুরী বাড়ির মাহমুদা চৌধুরীর নতুন বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। মুখোশধারী ডাকাত দল বাড়ির কলাপসিবল গেইটের তালা ভেঙ্গে গৃহে প্রবেশ করে পরিবারের লোকজনদেরকে জিম্মি করে একই ভবনে মাহমুদা চৌধুরীর কক্ষ থেকে নগদ ৫০ হাজার টাকা ও ৯ ভরি ওজনের স্বর্নালঙ্কার, স্কুল শিক্ষিকা বাবলী রানী সরকারের কক্ষ থেকে নগদ ২৫ হাজার টাকা ও ৭ ভরি ওজনের স্বর্ণালঙ্কার লুটে নেয়।

ডাকাত দল মালামাল লুট করার শেষে উভয় কক্ষের লোকজনকে একটি কক্ষে এনে দরজার বাহিরে সিটকারি লাগিয়ে দ্রুত চলে যায়। কক্ষে বন্দি হয়ে পড়া লোকজনদের ৯৯৯ নাম্বারে ফোন পেয়ে কচুয়া থানা পুলিশ রাত ৩টার দিকে ওই বাড়িতে ছুটে গিয়ে তাদেরকে উদ্ধার করে। ডাকাতির ঘটনায় গতকাল শনিবার চাঁদপুরের সিআইডি ও পিবিআই ব্রাঞ্চের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এ ব্যাপারে কচুয়া থানার ওসি মো. মহিউদ্দিন জানান, উক্ত দুটি বাড়ির ডাকাতির ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।