চাঁদপুরে লকডাউনের পঞ্চম দিনে ১৪৩ মামলা

কবির হোসেন মিজি :
চাঁদপুরে লকডাউনের পঞ্চম দিনেও কঠোর অবস্থানে ছিল প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত মাঠে ছিলেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, সেনাবাহিনী, বিজিবি, পুলিশ ও আনসার সদস্যরা। লকডাউনে সরকারি বিধিনিষেধ অমান্য করা এবং ভোক্তা অধিকার আইন লঙ্ঘন করে যারা বাইরে বের হচ্ছে তাদেরকে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে মামলা দিয়ে অর্থদন্ড আদায় করা হচ্ছে। লকডাউনের পঞ্চম দিনেও চাঁদপুর শহরের বিভিন্ন স্থানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত করা হয়।

সোমবার সকাল থেকে রাত পর্যন্ত সর্বমোট ১৭টি মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। চাঁদপুর শহরের কালীবাড়ি শপথ চত্বর এলাকা, পালবাজার গেইট, বাসস্ট্যান্ড, চেয়ারম্যান ঘাটা, ওয়ারলেস বাবুরহাটসহ বিভিন্ন স্থানে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন চাঁদপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

এতে যারা লকডাউন অমান্য করে বিনা কারণে বাইরে বের হয়েছে এবং যারা দোকানপাট খোলা রেখেছেন তাদের বিরুদ্ধে স্বাস্থ্য ও দন্ডবিধির ২৬৯ ধারায় ১৪৩টি মামলায় ১,৩১,৯২০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। আর এসব তথ্য চাঁদপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে জানা গেছে। এর পাশাপাশি এদিন ৩৯০জনকে ত্রাণ সহায়তা দিয়েছে চাঁদপুর জেলা প্রশাসন।

জানা যায়, লকডাউনের প্রথম এবং ৫ম দিনে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত চাঁদপুর শহরের বাসস্ট্যান্ড, চেয়ারম্যান ঘাটা ওয়ারলেস এবং শহরতলীর বাবুরহাট মহামায়া ও মঠখোলা এলাকাসহ বিভিন্ন স্থানে চাঁদপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের বেশ কয়েকজন ম্যাজিস্ট্রেট মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন।

এ সময় লকডাউন অমান্য করে যারা বিনা কারণে বাইরে বের হয়েছে তাদেরকে আলাদা আলাদাভাবে মামলা দিয়ে অর্থদন্ড আদায় করা হয়েছে।

চাঁদপুরে এই কঠোর লকডাউন চলমান পরিস্থিতিতে চাঁদপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের এই মোবাইল কোর্ট নিয়মিত পরিচালনা অব্যাহত থাকবে বলে জানা গেছে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।