নেশার টাকার জন্য মারধর করায় ছেলেকে পুলিশে দিলেন বাবা-মা

সুজন পোদ্দার :
নেশার টাকার জন্য পরিবারের সকলকে মারধর করায় রিপন হোসেন (২৪) নামের এক মাদকাসক্ত ছেলেকে পুলিশে দিয়েছেন বাবা- মা। বুধবার বিকেলে মা ও স্থানীয় লোকজন তাকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। তিনি চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার পালাখাল গ্রামের বিল্লাল হোসেনের ছেলে।

জানা যায়, রিপন দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে মাদকে আসক্ত হয়ে পড়েন। পরিবার থেকে টাকা না দিতে পারলে মা-বাবা, ভাই-বোনের উপর অত্যাচার নির্যাতন করতো। তাকে বিভিন্নভাবে বুঝানোর পর ও মাদকসেবন থেকে বিরত রাখা যায়নি। তাই স্থানীয় লোকজন তাকে আটক করে কচুয়া থানায় খবর দিলে এএসআই এনামুল হক সিদ্দিকী তাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

মাদকাসক্ত রিপনের বাবা রিক্সা চালক বিল্লাল হোসেন ও তার মা মনোয়ারা বেগম জানান, দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে রিপন মাদকাসক্ত রয়েছে। মাদকাসক্ত হয়ে আমাদের উপর বিভিন্ন সময়ে মারধরসহ এলাকায় নানা অপকর্ম করে আসছে। বিশেষ করে মাদকের টাকা না দিলে বিভিন্ন সময়ে বাড়ি-ঘর ভাংচুর ও তার-বোনদের উপর হামলা চালায়। যার ফলে অতিষ্ঠ হয়ে ছেলেকে পুলিশে সোপর্দ করেছি।

স্থানীয় অধিবাসী জসিম উদ্দিন মিয়াজী, আশেক আলী, আব্দুল মালেকসহ অনেকে জানান, মাদকসেবনের কারণে রিপন মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে পড়েছে। তাকে বিভিন্নভাবে বুঝানোর পরও সে ভালো হয়নি।

বোন কুলছুমা আক্তার আখি ও ইকরা আক্তার জানান, আমার ভাই রিপন কারণে অকারণে আমাদের মারধর করে। বিভিন্ন সময়ে নেশার টাকা না দিলে আমাদেরকেও মারধর করে। আমার ভাই ভালো হোক সমাজে ভালো হয়ে চলুক এটাই আমরা চাই।

কচুয়া থানার ওসি মো. মহিউদ্দিন জানান, উপজেলার পালাখালে রিপন নামের এক যুবক তার বাবা-মাকে মারধর করলে এলাকাবাসী আটক করে, এমন সংবাদ পেয়ে তাকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসি এবং তাকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।