প্রতিমা বিসর্জ‌নে চাঁদপু‌রে শারদীয় দুর্গোৎসব সম্পন্ন

শরীফুল ইসলাম :
ঢাকের তালে চোখের জলে অকৃত্রিম ভালোবাসায় দেবী দুর্গাকে বিদায় জানানোর মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে সনাতন হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গোৎসব। সোমবার (২৬ অক্টোবর) দুপুরের পর থেকে শহ‌রের চৌধুরীঘাট এলাকায় ডাকা‌তিয়া নতী‌তে শুরু হয় প্রতিমা বিসর্জন। করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের কারণে এবার প্রশাসনের নির্দেশনা থাকায় সন্ধ্যার মধ্যেই প্রতিমা বিসর্জন শেষ করা হয়। এবার হয়নি শোভাযাত্রা।

চণ্ডীপাঠ, বোধন ও দেবীর অধিবাসের মধ্য দিয়ে গত ২২ অক্টোবর থেকে শুরু হয় বাঙালি হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় উৎসব দুর্গাপূজা। সোমবার ছিল বিজয়া দশমী। ষষ্ঠী তিথিতে ‘আনন্দময়ীর’ নিদ্রাভঙ্গের বন্দনায় যে উৎসবের সূচনা হয়েছিল, দশমী তিথিতে প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে সেই বন্দনার শেষ হয়েছে। এ বছর চাঁদপুর জেলার ২০২টি পূজামন্ড‌পে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হয়।

এবার প্রতিমা বিসর্জনের সময় শোভাযাত্রা বা গান-বাজনায় নিষেধাজ্ঞা ছিল। কিন্তু দেবী দুর্গার উৎসবে মনে রং না লাগিয়ে কী থাকা যায়! তাই তো সেই রংয়ে রাঙা হলো দেবী দুর্গার মুখও। মণ্ডপে মণ্ডপে বিসর্জনের পর হয় ‘সিঁদুর বরণ’। এটি শুরু হয় বিবাহিত নারীদের সিঁদুর খেলার মাধ্যমে।

‌বি‌কেল থেকে বিসর্জনস্থ‌লে অ‌তি‌রিক্ত পু‌লিশ সুপা (সদর সা‌র্কেল) স্নিগ্ধা সরকার, ম‌ডেল থানার অ‌ফিসার ইনচার্জ মোঃ না‌সিম উ‌দ্দিন, বাংলা‌দেশ পূজা উদযাপন প‌রিষদ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক তমাল কুমার ঘোষ, বাংলা‌দেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য প‌রিষ‌দ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. রন‌জিৎ রায় চৌধুরী, কাউ‌ন্সিলর ফ‌রিদা ই‌লিয়াছসহ ‌বি‌ভিন্ন পূজামন্ড‌পের নেতৃবৃন্দসহ অসংখ্য ভক্তবৃন্দ উপ‌স্থিত ছি‌লেন।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।