ফরিদগঞ্জে সাড়ে ৬ বছর থেকেও বদলীকৃত উপজেলায় যাচ্ছেন না প্রকৌশলী!

নিজস্ব প্রতিবেদক :
ফরিদগঞ্জ উপজেলার সহকারী প্রকৌশল মোঃ জিয়াউল ইসলাম মজুমদারকে সম্প্রতি অন্যত্র বদলী করলেও তিনি সরকারি নির্দেশনা উপেক্ষা করে ফরিদগঞ্জেই দায়িত্ব পালন করে চলেছেন। এ নিয়ে জনমনে চরম বিস্ময় ও অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। প্রশ্ন উঠেছে তার খুঁটির জোর নিয়েও। টানা সাড়ে ৬ বছর একই কর্মস্থলে থাকা নিয়েও হতবাক উপজেলাবাসী।

স্থানীয়দের অভিযোগ, প্রকৌশলী মোঃ জিয়াউল ইসলাম মজুমদার দীর্ঘদিন ফরিদগঞ্জ থেকে সরকারি বেতন-ভাতার বাইরে বিপুল পরিমান অর্থ কামিয়েছেন। সেই অর্থের জোরে বার বার বদলী ঠেকাচ্ছেন তিনি। পাত্তা দিচ্ছেন না সরকারি দলের নেতা-কর্মীদেরও। সম্প্রতি তার বদলী হলেও তিনি বদলীকৃত নতুন কর্মস্থলে যাচ্ছেন না।

তার সময়কালে উপজেলার রাস্তা-ঘাটগুলোর বেহাল দশা ও নির্মাণের অল্প সময়ের মধ্যেই নষ্ট হওয়ার বিস্তর অভিযোগ রয়েছে। জনমনে রয়েছে চরম অসন্তোষ। তার দায়িত্বহীনতার অন্যতম উদাহরণ ফরিদগঞ্জ-রুপসা সড়কটি দীর্ঘদিন ধরে বেহাল অবস্থায় পড়ে থাকা। এতে জনগণ সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাচ্ছে।

তার সময়ে হওয়া ফরিদগঞ্জ-চান্দ্রা সড়কের কাজের গুণগত মান রক্ষা না করায় অল্প সময়ের মধেই কার্পেটিং উঠে পড়ছে। ফরিদগঞ্জ-কালির বাজার সড়কের একই অবস্থা বিরাজমান। এ ধরণের অসংখ্য সড়কের অবস্থা দৃশ্যমান রয়েছে। পাশাপাশি ব্রিজ- কালভার্ট নির্মাণেও অনিয়মের অভিযোগ রয়েছে।

এ বিষয়ে চাঁদপুর জেলা স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী ইউনুছ বিশ্বাস রোববার এ প্রতিনিধিকে বলেন, খুব শীঘ্রই ফরিদগঞ্জের প্রকৌশলী মোঃ জিয়াউল ইসলাম তার বদলীকৃত নতুন কর্মস্থলে যাবেন।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।