স্বতন্ত্র প্রার্থী এম ইশফাক আহসানকে নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটির শোকজ

নিজস্ব প্রতিবেদক :
চাঁদপুর-২ (মতলব উত্তর ও দক্ষিণ উপজেলা) আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী এম ইশফাক আহসানকে শোকজ করেছে নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটি। গত শনিবার (১৬ ডিসেম্বর) চাঁদপুর-২ আসনের নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটির চেয়ারম্যান এবং যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ সাইয়েদ মাহবুবুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক আদেশে এ শোকজ করা হয়।

শোকজে মঙ্গলবার (১৯ ডিসেম্বর) বেলা ১২টায় চাঁদপুর-২ এর নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটির চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে সশরীরে অথবা উপযুক্ত কোনো প্রতিনিধির মাধ্যমে লিখিতভাবে ব্যাখ্যা দেওয়ার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এম ইশফাক আহসান আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সদস্য। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে চাঁদপুর-২ আসনে তিনি আওয়ামী লীগের মনোনয়ন তথা নৌকা প্রতীক চান। কিন্তু দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন তিনি।

নির্বাচন অনুসন্ধান কমিটি প্রেরিত চিঠিতে বলা হয়েছে, চাঁদপুর-২ আসনের আওয়ামী লীগ মনোনীত সংসদ সদস্য প্রার্থী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী (মায়া) আপনার (এম ইশফাক আহসান) বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেছেন। তিনি বলেছেন, ‘আপনি বিগত ১৫/১২/২০২৩ খ্রি. তারিখ সন্ধ্যা অনুমান ৭-৮ ঘটিকার মধ্যে স্বতন্ত্র প্রার্থী, তার অস্ত্রধারী গানম্যান এবং তার সমর্থক তাজুল ইসলাম শ্যামল (পিতা- মৃত আব্দুল খালেক মাস্টার, সাং- বাহেরচর, পাঁচআনি), সাইফুল ইসলাম (পিতা- মৃত জাহাঙ্গীর সরকার, সাং- লতরদী), আলী আকবর (পিতা- মৃত আলী মিয়া প্রমানিক, সাং- পাঁচআনি), ইকবাল হোসেন জয় (পিতা- মৃত আনু সরকার)সহ অজ্ঞাত আরো ৩০-৩৫জন ব্যক্তি পাঁচআনি চৌরাস্তা বাজার এবং আমুয়াকান্দি গ্রাম সংলগ্ন পাকা রাস্তায় অস্ত্র-শস্ত্রসহ বেরিকেড সৃষ্টি করে তার আমার (মায়া) সমর্থক বাংলাদেশ কৃষক লীগ মতলব উত্তর উপজেলার সাংগঠনিক সম্পাদক মনির হোসেন মোল্লা এবং তার সঙ্গীয় ৪-৫জন ব্যক্তিকে হত্যার উদ্দেশ্যে আক্রমন করেন। তারা দৌড়ে কোন রকমে আত্মরক্ষা করেন। উল্লেখিত সন্ত্রাসীগণ আমার সমর্থকদের হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করে বলে তারা যদি আমার পক্ষে কাজ করে তাহলে তাদেরকে জীবনে মেরে ফেলা হবে। আমি ইতিমধ্যে জানতে পেরেছি যে, স্বতন্ত্র প্রার্থী বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অস্ত্রসহ সন্ত্রাসী ভাড়া করে তার বাড়িতে এনে রেখেছেন যা সাধারণ জনমনে আতঙ্কের সৃষ্টি করেছে। উপরোক্ত বিষয়ে নির্বাচন সুষ্ঠু, অবাধ এবং নিরপেক্ষ করার স্বার্থে স্বতন্ত্র প্রার্থীর ব্যবহৃত অস্ত্র প্রশাসনের হেফাজতে নেওয়া এবং তার অস্ত্রধারী গানম্যান প্রত্যাহার করাসহ উল্লেখিত সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আপনার উক্তরূপ কার্যের জন্য আপনার বিরুদ্ধে সংসদ নির্বাচনে রাজনৈতিক দল ও প্রার্থীর আচরণ বিধিমালা ২০০৮ এর ১১ (গ) বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ আনয়ন করেছেন। এমতাবস্থায় উল্লেখিত বিষয়ে আপনার কোন বক্তব্য থাকলে তা আগামী ১৯/১২/২০২৩ খ্রি. তারিখ রোজ মঙ্গলবার সকাল ১২ ঘটিকার সময় নিম্ন স্বাক্ষরকারীর কার্যালয়ে তথা যুগ্ম জেলা ও দায়রা জজ ২য় আদালত, চাঁদপুরে স্বশরীরে হাজির হয়ে বা উপযুক্ত কোন প্রতিনিধির মাধ্যমে লিখিতভাবে ব্যাখ্যা প্রদানের জন্য গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ ১০৭২ এর ৯১-এ (৫) (এ) অনুচ্ছেদের ক্ষমতাবলে আপনাকে নির্দেশ প্রদান করা হল।’

শেয়ার করুন