হাতি দিয়ে অভিনব কায়দায় চাঁদাবাজি

মো. রাছেল :
কচুয়ায় হাতি দিয়ে টাকা আদায় করা হচ্ছে। জোর করে এসব টাকা আদায়ের নামে চাঁদাবাজিতে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছেন পথচারী ও সাধারণ ব্যবসায়ীরা। হাতি দিয়ে গাড়ি থামিয়ে নেওয়া হচ্ছে টাকা। উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজার ও গ্রামে ঢুকে হাতি দিয়ে অভিনব কায়দায় টাকা আদায়ে নামে চলছে এ চাঁদাবাজি। কচুয়া বাজার, ডুমুরিয়া বাজার, রহিমানগর বাজার ও বিভিন্ন সড়কে হাতি দিয়ে টাকা আদায়ের চাঁদাবাজির এ দৃশ্য সবার নজরে পড়ছে।

জানা যায়, বড় আকৃতির একটি হাতি। পিঠে বসে আছে ১৩ বছরের কিশোর। নাম তার রাকিব হোসেন। রাস্তায় চলাচলকারী বিভিন্ন যানবাহনের পাশাপাশি মালিক রাকিবকে পিঠে নিয়ে হেলেদুলে রাস্তার এপাশ-ওইপাশ দিয়ে চলছে হাতি।

রাস্তার পাশে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের দোকান মালিককে শুঁড় উঁচু করে জানাচ্ছে সালাম। দোকান মালিকদের কেউ ১০ টাকার কম দিলে ওই টাকা না নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকছে হাতি। আর ১০ থেকে ১৫ টাকা করে টাকা দিলে হাতি শুঁড় দিয়ে নিয়ে হাতির মালিককে দিচ্ছে।

স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানান, হাতি দোকানের সামনে এসে দাঁড়ালে ক্রেতারা ভয়ে দোকানে ঢুকতে সাহস পান না। বিড়ম্বনা এড়াতে দোকান মালিকরা বাধ্য হয়ে টাকা দিয়ে দেয়। যাতে হাতি তাড়াতাড়ি দোকানের সামনে থেকে চলে যায়। হাতি দিয়ে অভিনব কায়দায় চাঁদাবাজি বন্ধে প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন এলাকাবাসী।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।