৫৫৫ পরিবারের বাড়িতে ত্রাণ পৌঁছাল জেলা প্রশাসন

নিজস্ব প্রতিবেদক :
করোনা ভাইরাস প্রতিরোধকালীন সময়ের মধ্যে চাঁদপুর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বেশ ক’টি উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। তার মধ্যে ‘ত্রাণ যাবে বাড়ি’ প্রোগ্রামের মধ্যে রোববারসহ ৫ দিনে ৫শ’ ৫৫ পরিবারের বাড়িতে ভলান্টিয়ারের মাধ্যমে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছানো হয়েছে। এই ৫ দিনে এই প্রোগ্রামের জন্য দেয়া ২টি হল লাইন নম্বরে কল রিসিভ করা হয়েছে ৯ শ’ ৩৩টি। জেলা প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট সূত্র থেকে এসব তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জামান জানান, রোববার ‘ত্রাণ যাবে বাড়ি’ হট লাইনে সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ২৪০টি কল রিসিভ করা হয়েছে। তন্মধ্যে ১৩৩ পরিবারকে ভলান্টিয়ার দিয়ে তাদের বাড়িতে ত্রাণ পৌঁছে দেয়া হয়েছে।
এর আগে শনিবার সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত হট লাইনে ৩১৫টি কল রিসিভ করা হয়েছে। তন্মধ্যে ১৫৬ পরিবারকে ভলান্টিয়ার দিয়ে তাদের বাড়িতে ত্রাণ পৌঁছানো হয়।

শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত হট লাইনে কল রিসিভ হয়েছে ১৯৩টি। তন্মধ্যে ১শ’ ১৯ পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা পৌঁছানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত হট লাইনে মোট কল রিসিভি করা হয় ১৮৫টি। তন্মধ্যে ১শ’ সাত পরিবারকে খাদ্য সহায়তা পৌঁছানো হয়।

বুধবার প্রোগ্রামটি চালু হওয়ার দিন ৪০ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা পৌঁছানো হয়।

এছাড়া করোনা ভাইরাস প্রতিরোধকালীন সময়ে জেলা প্রশাসক মো. মাজেদুর রহমান খান এর উদ্যোগে শহরের দু’টি ডিপার্টমেন্টাল স্টোরে ২০% মূল্য ছাড়ে নিত্য প্রয়োজনীয় পন্য ক্রয়, ২টি হসপিটাল ও ১টি ফার্মেসীতে একান্ত প্রয়োজনীয় ঔষধ ক্রয় করার ব্যবস্থা এবং শহরের আল-আরাফ, ক্যাফে ঝিল ও চাঁদপুর হোটেলে প্রতিদিন দুপুরে ৩শ’ জনকে বিনামূল্যে খাওয়ার ব্যবস্থা চালু করা হয়।

উল্লেখ্য, জেলা প্রশাসনের ‘ত্রাণ যাবে বাড়ি’ প্রোগ্রামে একজন নারী আইনজীবী ২০ হাজার টাকা দান করেছেন।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন