চাঁদপুরের আলোচিত হান্নান হত্যা মামলায় স্ত্রীর ২ ভাই আটক

শাওন পাটওয়ারী :
হান্নান হত্যা মামলায় স্ত্রী আয়শা বেগমের বড় ভাই শাওন ও হিরা কে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে চাঁদপুর সদর মডেল থানা পুলিশ।

মঙ্গলবার (১৫ মার্চ) দুপুরে চাঁদপুর সদর মডেল থানা পুলিশের এসআই মোঃ রাশেদুদজামান সদর উপজেলার বিষ্ণপুর ইউনিয়ন থেকে তাদেরকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

১৪ মার্চ রাতে নিহত হান্নানের বোন আমেনা বেগম অজ্ঞাত ৩/৪ জনের নামে বাদী হয়ে চাঁদপুর সদর মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলা নং- ৪৪।

শাওন ও হিরা চাঁদপুর সদর উপজেলার বিষ্ণপুর ইউনিয়নের প্রধানিয়া বাড়ির হানিফ মুহরীর ছেলে। তবে হানিফের স্ত্রী আয়শা বেগম পলাতক রয়েছে।

জানা যায়, হান্নান হত্যার বিচারের দাবিতে নিহতের লাশ নিয়ে বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুনরায় একই স্থানে গিয়ে মিছিলটি শেষ করে পরিবার ও এলাকাবাসী।

পরে তারা সেখানে প্রায় ঘন্টাব্যাপি সড়ক অবরোধ করে। বাদ যোহর বিষ্ণুদী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে জানাযার নামাজ শেষে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়।

এর পূর্বে বিক্ষোভকারীরা চাঁদপুর সদর মডেল থানা ঘেরাও করার উদ্দেশ্যে কালিবাড়ি মোড় পর্যন্ত আসলে ওসি মুহাম্মদ আবদুর রশিদ দ্রুত আসামীদের গ্রেফতারের আশ্বস্থ করে পরিস্থিতি শান্ত করেন।

বোনের জামাতা রুবেল ও চাচাতো ভাই আল-আমিনসহ পরিবারের সদস্যরা জানায়, আমরা ১লা মার্চ হান্নান কে কোথায়ও খুঁজে না পেয়ে চাঁদপুর সদর মডেল থানায় একটি ডায়রী করি। এর পরের দিন হান্নানের স্ত্রী আয়শা বেগম স্বামীর বাড়িতে এসে শ্বশুড়, শাশুড়ি ও ননদের সাথে খারাপ আচরণ করে জামা কাপড়সহ অন্যান্য জিনিসপত্র নিয়ে তার বাপের বাড়িতে চলে যায়। প্রকৃত দোষীদের সনাক্ত করে দ্রুত আইনের আওতায় আনতে প্রশাসনের সহযোগীতা কামনা করছি। এছাড়া তারা হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতারের মাধ্যমে ফাঁসির দাবি জানায়।

প্রসঙ্গত, শ্বশুড় বা‌ড়ি যাওয়ার পর থেকে নি‌খোঁজ হান্নান মৃধা (৩৭) নামের ব্যবসায়ীর ১৩ দিন পর বেনাপোল থেকে মৃত অবস্থায় সন্ধান মিলে।

হান্নান মৃধা চাঁদপুর পৌরসভার ১৫নং ওয়া‌র্ডের বিষ্ণুদী মৃধা বাড়ি এলাকার আবুল হো‌সেন মৃধার ছে‌লে। বিষ্ণুদী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাছে তার একটি দোকান রয়েছে। ১৩ মার্চ সকাল ৯ টায় যশোরের শার্শা থানা পুলিশ খবর পেয়ে একটি গাছে হান্নানের মরদেহ মাটিতে পা লাগানো ঝুলন্তবস্থায় উদ্ধার করেছে।

১৫ মার্চ সোমবার রাতে বেনাপোল থেকে হান্নানের লাশ ময়নাতদন্ত শেষে চাঁদপুর নিয়ে আসা হয়। এর পূর্বে বেনাপোলে হান্নানের লাশ পাওয়ার খবর শুনে স্বজনরা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।