চাঁদপুরের নদীতে ৪০ জেলে আটক : ৩২ লাখ মিটার জাল ও ২৫টি নৌকা জব্দ

শরীফুল ইসলাম :
চাঁদপুর নৌ-পুলিশের অভিযানে চাঁদপুর নৌ-সীমানা থেকে ৪০ জেলেকে আটক করা হয়েছে। এ সময় ৩২ লাখ মিটার কারেন্ট জাল, ২৫ টি জেলে নৌকা ও ১২০ কেজি ইলিশ জব্দ করা হয়। মা-ইলিশের প্রজনন মৌসুমে মা ইলিশ রক্ষায় রোববার মধ্যরাত থেকে সোমবার সকাল পর্যন্ত চাঁদপুরের পদ্মা-মেঘনার অভয়াশ্রম চলাকালীন সাঁড়াশি অভিযান চালিয়েছে নৌ-পুলিশ।

আটককৃতদের মধ্যে বরগুনা জেলার মো. নবিন, নোয়াখালী জেলার মো. কামাল, মো. সিরাজ, ভোলা জেলার মো. কালু, মো. হামিদ মোল্লা, সদর উপজেলার রাজরাজেস্বর ইউনিয়নের আক্তার ঢালী, মো. নাজমুল হোসাইন, শাহজালাল, মো. আমান উল্লাহ দেওয়ান, মো. রাকিব ঢালী, আল আমিন, মো. খোরশেদ আলম, আবদুল আজিজ, এনায়েত উল্ল্যাহ, মো. সৈয়দ মোল্লা, মো. আমান উল্লাহ, হাইমচর উপজেলার মো. শাকিল মিয়া, হেলাল খান, শরীয়তপুর জেলার মো. খোরশেদ আলম। এর মধ্যে কিছু সংখ্যক জেলেকে স্থানীয় পুলিশ ফাঁড়ি ভিত্তিক নিয়ে যাওয়া হয়।

নৌ-পুলিশ সুপার মোহাম্মদ কামরুজ্জমান নেতৃত্বে ৬টি টিম নিয়ে নৌ-পুলিশ সদস্যরা অভিযানে যোগ দেন। এছাড়া নৌ-পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বেলায়েত হোসেন, চাঁদপুর নৌ-থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মুজাহিদুল ইসলাসসহ বিভিন্ন ফাঁড়ির পুলিশ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

নৌ-পুলিশ সুপার কামরুজ্জমান বলেন, চাঁদপুর সদরের রাজরাজেশ্বর ও তার আশপাশের পদ্মা ও মেঘনা নদীর বেশকিছু এলাকায় এই সাঁড়াশি অভিযান চালানো হয়। অভিযানকারী দল দেখে জেলেরা জাল ও নৌকা নিয়ে দ্রুত পালিয়ে যাবার চেষ্টা করেন। জব্দকৃত জেলে নৌকা নদীতে ডুবিয়ে দেওয়া হয় এবং কারেন্ট জাল আগুনে পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন