চাঁদপুরের মেঘনা নদীতে প্রচন্ড ঝড়ের কবলে সোনার তরী-২ লঞ্চ

শরীফুল ইসলাম :
চাঁদপুরের মেঘনায় প্রচন্ড ঝড়ের কবলে পড়ে এমভি সোনারতরী-২ নামের একটি লঞ্চ অল্পের রক্ষা পেয়েছে। চালকের বুদ্ধিমত্তায় লঞ্চের দেশ শতাধিক যাত্রীর প্রাণ রক্ষা পেয়েছে। সোমবার রাতে চাঁদপুর-ঢাকা নদীপথে প্রচণ্ড ঝড় বয়ে যায়। এ সময় চাঁদপুরের মতলব উত্তর ও মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার সীমান্তবর্তী এলাকায় ঝড়ের কবলে পড়ে লঞ্চটি।

লঞ্চটির একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। সেখানে দেখা যায়, প্রচন্ড বাতাসে লঞ্চটি কাপছে আর মানুষ চিৎকার করছে। লঞ্চটি কয়েক ঘন্টা নদীতীরে নোঙ্গর করে রাখা হয়। এরপর আবার চাঁদপুরের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়। মঙ্গলবার ভোরে লঞ্চটি চাঁদপুর লঞ্চঘাটে এসে পৌঁছায়।

বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, ঢাকা থেকে বিকেল ৬টায় চাঁদপুরের উদ্দেশে রওনা হয় যাত্রীবাহী লঞ্চ এমভি সোনার তরী-২। রাত ৮টার পর লঞ্চটি মেঘনা নদীতে হঠাৎ ঝড়ের কবলে পড়ে। এ সময় লঞ্চটিতে দেড় শতাধিক যাত্রী ছিল। দুর্ঘটনা আঁচ করতে পেরে লঞ্চের চালক মেঘনার একটি চরে নিয়ে নোঙর করেন। এতে বড় ধরনের দুর্ঘটনা থেকে লঞ্চটি রক্ষা পায়। তবে ভয়ে লঞ্চের যাত্রীরা চিৎকার চেঁচামিচি করতে থাকেন।

চাঁদপুর নৌ-থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বলেন, সকাল থেকেই আমরা ঘাটে অবস্থান করছি। লঞ্চটি ইতিমধ্যে চাঁদপুর ঘাটে এসে পৌঁছেছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করতে পারেননি বিআইডব্লিউটিএ’র চাঁদপুর বন্দর কর্মকর্তা কায়সারুল ইসলাম বলেন, ঝড়ে লঞ্চ বা যাত্রীদের কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।