চাঁদপুরে গৃহবধূ লাভলীকে হত্যায় স্বামী আটক : আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

সুজন পোদ্দার :
চাঁদপুরের কচুয়ায় গৃহবধূ লাভলীকে (২২) হত্যার অভিযোগে স্বামী শাহাদাত হোসেনকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। মঙ্গলবার কচুয়া থানার পুলিশ তাকে চাঁদপুরের আদালতে সোপর্দ করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি রেকর্ড শেষে জেলহাজতে প্রেরণ করে।

জানা যায়, কচুয়া উপজেলার সহদেবপুর গ্রামের মোকসুদ আলীর মেয়ে লাভলী আক্তার প্রায় ৫ বছর পূর্বে প্রেমের সম্পর্কে মনপুরা গ্রামের আব্দুল মান্নানের পুত্র শাহাদাত হোসেনের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। গত কয়েক মাস যাবৎ স্বামী শাহাদাত হোসেনের সাথে লাভলীর পারিবারিক বিষয় নিয়ে ঝগড়া বিবাদ চলে আসছিল।

গত রোববার বিকেলে এনআইডিসহ অন্যান্য কাগজপত্রের প্রয়োজনীয়তা দেখা দেওয়ায় লাভলী ঢাকা থেকে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হয়। সন্ধ্যার পর পর লাভলীর মা খোশনেয়ারা বেগম তার মোবাইল নাম্বারে ফোন দিয়ে অবস্থান জানতে চাইলে সে কচুয়া উপজেলার সাচার বাজারের নিকট এসেছে বলার পরই তার ফোন বন্ধ হয়ে যায়। এরপর কয়েকবার চেষ্টা করেও তার ফোনের সংযোগ পাওয়া যায়নি।

পরদিন সোমবার সকালে স্থানীয় লোকজন লাভলীর মৃতদেহ কচুয়া উপজেলার বাচাইয়া ব্রিকফিল্ডের দক্ষিণ পাশে প্রায় ৫শ’ গজ পশ্চিমে মাঠে একটি ডোবার পাড়ে পড়ে থাকতে দেখে থানা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। একই সাথে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার স্বামী শাহাদাত হোসেনকে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে শাহাদাত তার স্ত্রী লাভলীকে একাই শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে বলে স্বীকার করে।

পরদিন মঙ্গলবার চাঁদপুরের বিজ্ঞ আদালতে ১৬৪ ধারায় শাহাদাতের জবানবন্দি রেকর্ড করে জেলহাজতে প্রেরণ করার বিষয়টি মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই তরুণ দে নিশ্চিত করেছেন। লাভলীর হত্যার বিষয়ে তার মা বাদী হয়ে কচুয়া থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা নং ১৬, তারিখ ১৫-০২-২০২১ খ্রি.। মামলাটি তদন্ত করছেন এসআই তরুণ দে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন