চাঁদপুরে বালু ব্যবসায়ী রেহান মিজি হত্যাকান্ডের মূল হোতা খোরশেদ আটক

কবির হোসেন মিজি :
চাঁদপুর শহরের ট্রাক রোড খান বাড়ি সড়কের রেহান উদ্দিনের প্রকৃত হত্যাকারী নোয়াখালীর খোরশেদ আলমকে আটক করেছে চাঁদপুর মডেল থানা পুলিশ। বুধবার (৩০ জুন) সন্ধ্যায় তথ্যযুক্তি ব্যবহার করে চাঁদপুর মডেল থানা পুলিশ চাঁদপুর শহরের প্রফেসরপাড়া মাঝি বাড়ি এলাকার শাহজাহান গাজীর মেস থেকে তাকে আটক করেন।

পুলিশের ধারণা ছিল, রেহান উদ্দিনকে জুয়া খেলার টাকা ভাগ বাটোয়ারার বিষয় নিয়ে খুন করা হয়। অবশেষে তাই সত্যি হলো।

একটি সূত্র থেকে জানা যায়, কয়েক মাস আগে নোয়াখালীর রামগঞ্জের খোরশেদ আলম খুন হওয়া রেহান উদ্দিনর সাথে জুয়া খেলায় প্রায় অর্ধলাখ টাকার বেশি বাজিতে হেরে যায়। এতে খোরশেদ আলম হেরে যাওয়া টাকার জন্য রেহান উদ্দিনকে হত্যার পরিকল্পনা করেন। সেই পরিকল্পনা মতে গত বৃহস্পতিবার রাতে রেহান উদ্দিনের সাথে জুয়া খেলার কথা বলে তার বাসায় অবস্থান করে। রেহান উদ্দিনের মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে তাকে হত্যা করেছে খোরশেদ।

জানা যায়, আটক খোরশেদ আলম চাঁদপুর শহরের প্রফেসরপাড়া শাহজাহান গাজীর মেসে থেকে সে চাঁদপুর শহরে অটোবাইক চালাতো বলে সে পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে। একই সাথে সে রেহান উদ্দিনকে হত্যার কথা ও স্বীকার করে।

এদিকে ঘটনার দিন রেহান উদ্দিনের প্রথম স্ত্রী পারভিন বেগম বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করে। ওই মামলায় সন্দেহ জনক আসামী হিসাবে ২য় স্ত্রী স্বপ্না বেগমসহ ৪জনকে পুলিশ আটক করে জেলহাজতে পাঠিয়েছে।

চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুর রশিদ জানান, আমরা তাকে জুয়া খেলার তাসসহ অন্যান্য নেশাগ্রস্ত সামগ্রীসহ আটক করি। আটককৃত খোরশেদ আলম জুয়া খেলায় বাজিতে হেরে গিয়ে রেহান উদ্দিন কে খুন করার কথা স্বীকার করেছে।

এ বিষয়ে আজ বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায় চাঁদপুর আনুষ্ঠানিকভাবে প্রেস ব্রিফিং করবে জেলা পুলিশ।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন