চাঁদপুরে মাইক্রোবাস-সিএনজির মুখোমুখী সংঘর্ষে চালকসহ ৪জন নিহত

কবির হোসেন মিজি :
চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলায় মাইক্রোবাসের সঙ্গে সিএনজি অটোরিক্সার মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়েছে। এতে ১জন ঘটনাস্থলে নিহত ও গুরুতর আহত আরো ৩জনকে চাঁদপুর সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে ও ভর্তির পরে মারা গেছেন। বৃহস্পতিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় বাবুরহাট-মতলব সড়কের বরদিয়া আড়ং এলাকার কাজী সুলতান আহমেদ উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- সিএনজি অটোরিক্সার যাত্রী চাঁদপুর পুরানবাজার পশ্চিম শ্রীরামদী এলাকার হারুন বেপারীর ছেলে হানিফ বেপারী (২৮), চাঁদপুর শহরের বকুলতলা এলাকার আজিম উদ্দিনের কন্যা নুপুর আক্তার (১৮), সিএনজি অটোরিক্সার চালক ও পথচারী (৭০) এক বৃদ্ধা। তাদের ২জনের নাম-পরিচয় এখনো জানা যায়নি। এই দুর্ঘটনায় আরো ২ যাত্রী গুরুতর আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন- জান্নাত আক্তার পপি এবং অপরজন অজ্ঞাত।

নিহতদের স্বজন ও সহকর্মীরা জানান, তারা কয়েকজন সংস্কৃতিকর্মী নিয়মিত বিভিন্ন অনুষ্ঠানে নৃত্য করে থাকেন। ঘটনার দিন বিকেলে তারা কয়েকজন মিলে মতলব দক্ষিণ উপজেলার বরদিয়া আড়ং এলাকার একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে নাচের জন্য সিএনজি অটোরিক্সায় করে চাঁদপুর থেকে মতলবের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেন। তাদের বহনকৃত সিএনজি অটোরিক্সাটি ঘটনাস্থল অতিক্রিমকালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মাইক্রোবাসের সাথে মুখোমুখী সংঘর্ষ হয়। দুর্ঘটনায় মাইক্রোবাসের আঘাতে সিএনজি অটোরিক্সাটি দুমড়েমুচড়ে যায় এবং যাত্রীরা ছিটকে পড়ে রক্তাক্ত জখম হয়ে গুরুতর আহত হন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঘটনাস্থলেই সিএনজি স্কুটারচালক নিহত হয়েছেন। বাকীদের প্রত্যক্ষদর্শীরা গুরুতর আহত অবস্থায় চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্মরত চিকিৎসক মো. মিজানুর রহমান হাসপাতালে আনা হানিফ বেপারী ও অজ্ঞাত বৃদ্ধাকে মৃত ঘোষণা করেন। তাদের সাথে থাকা গুরুতর আহত জান্নাত আক্তার পপি ও নুপুর আক্তারকে হাসপাতালের চতুর্থতলায় ভর্তি দিলে কিছুক্ষণ পর নুপুরের মৃত্যু হয়।

নিহতের সহকর্মী রুবেল জানান, মতলব বরদিয়া আড়ং এলাকায় একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের জন্য তাদেরকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। ওই অনুষ্ঠানে যোগ দিতে তারা কয়েকজন সিএনজি অটোরিক্সাযোগে মতলব আসার পথে হঠাৎ বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মাইক্রোবাস সিএনজি অটোরিক্সার সাথে মুখোমুখী সংঘর্ষ হয়। এ সময় দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলেই সিএনজি অটোরিক্সার চালক মারা যায় এবং অটোরিক্সাটি ছিটকে গিয়ে এক পথচারী বৃদ্ধার উপর পড়লে তিনিও মারা যান।

চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসারের (আরএমও) দায়িত্বে থাকা ডা. মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় আমাদের হাসপাতালে ৪জনকে গুরুতর আহত অবস্থায় নিয়ে আসা হলে আমরা তাদের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে হানিফ বেপারী এবং অজ্ঞাত বৃদ্ধা এ দু’জনকে মৃত দেখতে পাই। বাকী দু’জনকে হাসপাতালে ভর্তি দিলে ৭ টা ৫ মিনিটে নুপুর নামে আরেকজন রোগীর মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুর রশিদ মিয়া জানান, আমরা সড়ক দুর্ঘটনার খবর পেয়েছি। আমরা হাসপাতালে থেকে ৩জন লাশের সন্ধান পেয়েছি। ঘটনাস্থলে সিএনজি অটোরিক্সার চালক নিহত হওয়ার খবর পেয়েছি।

চাঁদপুরের পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ জানান, দুর্ঘটনায় ৪জন মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। দুর্ঘটনা কবলিত মাইক্রোবাস ও সিএনজি অটোরিক্সাটি আটক করেছে পুলিশ।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।