চাঁদপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় ১৪ দিনে ১১জনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক :
চাঁদপুর জেলায় সাম্প্রতিক সময়ে সড়ক দুর্ঘটনা বেড়ে গেছে। বেপরোয়া ও পাল্লা দিয়ে দ্রæত গতিতে যানবাহন চলাচল করতে যেয়ে এমন ঘটনা বেশি ঘটছে। এর মধ্যে বোগদাদ বাস ও রিল্যাক্স বাসের অশুভ প্রতিযোগিতা যাত্রীদের শঙ্কিত করে তুলেছেন। এছাড়া রেসিং স্টাইলে হেলেদুলে বেপরোয়া গতিতে চলাচলের কারণে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনাও বেড়েছে।

চাঁদপুরে এখন প্রায় প্রতিদিন কোন না কোন সড়কে প্রাণ যাচ্ছে পথচারী কিংবা যাত্রীর। বিশেষ করে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনা অনেক বেড়ে গেছে। গত ১৪ দিনে চাঁদপুরে প্রায় ১১জনের প্রাণ সড়কে ঝরলো। তারপরও বেপরোয়া গড়িতে গাড়ি চলাচল বন্ধ হচ্ছে না।

গত ২০ নভেম্বর রাত ১১টার দিকে চাঁদপুর-কুমিল্লা সড়কের কচুয়া উপজেলার খাজুরিয়া বাজারে বালুবাহী ট্রাক ও যাত্রীবাহী সিএনজিচালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে ২জন নিহত হন।

গত ২৩ নভেম্বর চাঁদপুর সদর উপজেলার মহামায়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে রাত সাড়ে ৯টার দিকে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ২ এসএসসি পরীক্ষার্থীর মৃত্যু হয়।

২৫ নভেম্বর কচুয়া গৌরিপুর বিশ্বরোড়ে বিআরটিসি বাসচাপায় সিএনজিতে থাকা ৩জন কলেজ শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়। একই দিনে অটোরিক্সার ধাক্কায় আহত হয়ে ২৯ শাহরাস্তির নাওড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা ফাতেমা তুজ জোহরা মৃত্যুবরণ করেন।

গত ২৬ নভেম্বর শাহরাস্তিতে অপর দুর্ঘটনায় ৫জন আহত হয়। এর মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক ছিল। তাদের ভাগ্যে কি হয়েছে তা জানা যায়নি।

সর্বশেষ ৩ ডিসেম্বর হাজীগঞ্জের ধেররায় নিহত হয় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী। নিহতরা হলেন- কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার বেলাস্বর গ্রামের সোহাগ (২৬), সুজন (৩০) ও মনির হোসেন (৩০)।

নিহতদের সহপাঠী রবিউল ইসলাম জানায়, তারা ৬ বন্ধু মিলে কুমিল্লার চানিন্দা উপজেলা থেকে মোটরসাইকেল চালিয়ে চাঁদপুর বড়স্টেশন মোলহেডে বেড়াতে যাচ্ছিলেন। এ সময় তারা হাজীগঞ্জ ধেররা এলাকায় ভাইয়া সুপার মার্কেটের সামনে এলে চাঁদপুর থেকে ছেড়ে আসা বোগদাদ বাস তাদের চাপা দেয়। এতে ৬ বন্ধুর মধ্যে একটি মোটরসাইকেলে থাকা ৩জন ঘটনাস্থলে মৃত্যুবরণ করেন।

এত দুর্ঘটনা ও প্রাণহানীর পরও চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কসহ জেলার সড়কগুলোতে বেপরোয়া গতিতে ও পাল্লা দিয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়নি। এ ব্যাপারে প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীতে কঠোর অভিযান পরিচালনার দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।