চাঁদপুরে ১০ মাস পর নিখোঁজ যুবতী ৬ মাসের অন্তসত্ত্বা অবস্থায় উদ্ধার!

নিজস্ব প্রতিবেদক :
চাঁদপুরে নিখোঁজের ১০ মাস পর ৬ মাসের অন্তসত্ত্বা যুবতি শান্তা আক্তার (২১) কে উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১ জুন) দুপুরে চাঁদপুর শহরের পুরাতন আদালতপাড়ার একটি ফ্ল্যাট বাসা থেকে আদালতের সার্স ওয়ারেন্টের ভিত্তিতে নতুনবাজার পুলিশ ফাঁড়ির এসআই মোঃ ঈসমাইল তাকে উদ্ধার করেন।

জানা যায়, ১ বছর পূর্বে জাকারিয়া বাপ্পি নামের এক হিন্দু ছেলের সাথে দীর্ঘদিন প্রেমের পর তার সাথে শান্তা আক্তারের বিয়ে হয়। জাকারিয়া বাপ্পি হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করে মুসলমান হয়ে শান্তা আক্তারকে বিয়ে করে। বিয়ের ২/৩ মাস পর জাকারিয়া বাপ্পি পারিবারিক চাপে মুসলমান ধর্ম ত্যাগ করে আবার হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করে। পরে সে তার স্ত্রী শান্তাকে নিয়ে ঢাকা চলে যায়।

শান্তার মা শেফালী বেগম মেয়েকে অনেক খোঁজাখুজি করে না পেয়ে আদালতে একটি নিখোঁজের মামলা করেন (মামলা নং ৪০১/২১)। আদালত এ বিষয়ে সার্স ওয়ারেন্ট জারি করে। সার্স ওয়ারেন্টের ভিত্তিতে মঙ্গলবার দুপুরে চাঁদপুর শহরের পুরাতন আদালতপাড়ার মহিলা অধিদপ্তরের পশ্চিম পাশে তার শ্বশুর বাবুল সরকারের ফ্ল্যাট বাসা থেকে শান্তা আক্তারকে উদ্ধার করে আদালতে সোপর্দ করে পুলিশ।

শান্তার পারিবারিক সূত্রে অভিযোগ করা হয়েছে, শান্তা আক্তারকে তার স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন মুসলমান ধর্ম ত্যাগ করে হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করতে চাপ প্রয়োগ করছে। তাদের অভিযোগ, গত ১০ মাস ধরে নিখোঁজ শান্তা আক্তারকে তার পরিবারের সাথে কোন প্রকার যোগাযোগ করতে দেয়া হয়নি। এই ১০ মাস তাকে অনেক খোঁজাখুজি করা হয়। শান্তা আক্তার এখন ৬ মাসের অন্তসত্ত্বা।

এ ব্যাপারে নতুনবাজার পুলিশ ফাঁড়ির এসআই মোঃ ঈসমাইল দৈনিক চাঁদপুর প্রবাহকে জানান, আদালতে সার্স ওয়ারেন্টের ভিত্তিতে পুরাতন আদালতপাড়া থেকে ভিকটিমকে উদ্ধার করেছি। তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।