ফরিদগঞ্জ পৌর মেয়র মাহফুজুল হকের বিরুদ্ধে প্রথম স্ত্রীর কান্নাভেজা সাংবাদিক সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিবেদক :
ফরিদগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মাহফুজুল হকের বিরুদ্ধে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন তার প্রথম স্ত্রী সোনিয়া আক্তার। সোমবার সকালে চাঁদপুর প্রেসক্লাবে নিজ সন্তান, বাবা ও বোনদের নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে হাজির হন তিনি। কান্নাভেজা নয়নে পুরো সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন সোনিয়া আক্তার।

সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত ও মৌখিক বক্তব্যে সোনিয়া আক্তার অভিযোগ করেন, বিয়ের পর তাদের সংসার প্রথম দিকে ভালো চললেও মাদকাসক্ত হয়ে দিনে দিনে স্ত্রীর প্রতি নির্যাতন বাড়াতে থাকেন মাহফুজুল হক। ব্যবসা ও অন্যান্য সমস্যার কথা বলে শ্বশুর ও ভায়রার কাছ থেকে মোটা অংকের অর্থ নেন কয়েক দফায়। কিন্তু সেসব টাকা ফেরত দেননি।

তিনি আরো জানান, তার স্বামী মাহফুজুল হক পরনারীতে আসক্ত। বিশেষ করে মেয়র নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে ক্ষমতার দাপটে তিনি মাদকাসক্ত ও নারীতে আসক্তি বাড়িয়ে দেন। এর প্রতিবাদ করলেই সোনিয়ার উপর নির্যাতন আরো বেড়ে যায়। কিন্তু ৩ সন্তানের কথা চিন্তা করে তিনি এসব নির্যাতন সহ্য করে আসলেও বর্তমানে নির্যাতনের মাত্রা আরো বেড়ে গেছে। তার অমতে দ্বিতীয় বিয়েও করেছেন মাহফুজুল হক।

এ অবস্থায় বাধ্য হয়ে তিনি তার স্বামীর বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেছেন। এরপর থেকে সোনিয়া ও তার বাবা, দুলাভাইসহ পরিবারের সকলকে হুমকি-ধমকি দেওয়া হচ্ছে বলে তিনি অভিযোগ করেন।

তবে এতকিছুর পরও ৩ সন্তান এবং বর্তমানে গর্ভের সন্তানের কথা চিন্তা করে মাহফুজের সাথেই সংসার করতে চান সন্তানসম্ভবা সোনিয়া আক্তার। এ ব্যাপার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সবার সহযোগিতা চেয়েছেন তিনি।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন