মাদ্রাসা শিক্ষক কর্তৃক ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ

কে এম নজরুল ইসলাম :
চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার কাঁশারা দারুল উলুম মাদ্রাসায় প্রথম শ্রেণিতে পড়ুয়া ৫ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত মাদ্রাসাশিক্ষক পলাতক রয়েছে।

রোববার (২৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরের দিকে এ ঘটনা ঘটে। একই দিনে শিশুটিকে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।পরে স্বাস্থ্যের অবস্থার অবনতি দেখে চাঁদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। বর্তমানে ওই শিশু চাঁদপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

শিশুটির মা বলেন, প্রতিদিনের মতো আমার মেয়ে সকাল সাড়ে ৮টার সময় মাদ্রাসায় যায়। মাদ্রাসা ছুটির শেষে দুপুর অনুমান ১টা ২০ মিনিটের সময় সে বাড়িতে আসে। বাড়িতে আসার পর ওইদিন অন্যদিনের তুলনায় তাকে অন্যমনস্ক, মনমরা, মলিন চেহারায় দেখি।

তার মনখারাপের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করি, এতে সে কান্না করতে থাকে। আমি মেয়েকে বাড়ির পুকুরঘাটে নিয়ে গোসল করানোর জন্য তার পরিহিত জামা-কাপড় খুললে তার পায়জামায় রক্ত দেখতে পাই। তারপর আমি আমার মেয়েকে তার শরীরে রক্ত ও মনখারাপের বিষয়ে ভালো করে জিজ্ঞাসাবাদ করতে থাকি।

সে জানায়, মাদ্রাসা ছুটির পর সে যখন মাদ্রাসাভ্যানের জন্য অপেক্ষা করে তখন উক্ত মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক মো. আবুল হোসেন (২৭) বিভিন্নভাবে ফুসলিয়ে চকলেট খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে মাদ্রাসার একটি খালি কক্ষে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।