মায়া চৌধুরীর পক্ষে মতলব উত্তরে প্রধানমন্ত্রীর খাদ্য উপহার বিতরণ শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক :
প্রতিদিন করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ছে। কর্মহীন হয়ে পড়ছে মানুষ। খাদ্য অভাবে পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন মানুষ। করোনার এ পরিস্থিতিতে চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলায় সাবেক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী (মায়া) বীর বিক্রম এমপির পক্ষ থেকে ৭শ’ হতদরিদ্র ও কর্মহীনদের মাঝে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার বিতরণ করা হয়েছে।

শনিবার মতলব উত্তর উপজেলার ফতেপুর পূর্ব ইউনয়নে ৪শ’ পরিবার ও ৬নং কলাকান্দা ইউনিয়নে ৩শ’ পরিবারকে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও দলীয় নেতা-কর্মীদের মাধ্যমে এ খাদ্যসামগ্রী ও ইফতারসামগ্রী পৌছানো হয়।

উপহার সামগ্রীর মধ্যে ছিল ৫ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি তেল, ২ কেজি আলু, ১ কেজি ছোলা ও ১টি সাবান বিতরণ করা হয়।
বিশ^ব্যাপী নভেল করোনা ভাইরাসের সংক্রমনের ফলে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় সাবেক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া মায়া বীর বিক্রমের নিজস্ব অর্থায়নে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সদস্য সাজেদুল হোসেন চৌধুরী দিপু এবং বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সম্পাদক আশফাক হোসেন চৌধুরীর মাহির সার্বিক ব্যবস্থাপনা ও সহযোগিতায় সামাজিক দূরুত্ব বজায় রেখে স্থানীয় আ’লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও অন্যান্য সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীদের মাধ্যমে এ খাদ্যসামগ্রী ও ইফতারসামগ্রী বিতরণ করা হয়।

সাবেক দুুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী (মায়া) বীর বিক্রম ও তার পরিবারের পক্ষে উপজেলা যুবলীগের সদস্য আহমেদ চৌধুরী, উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্য মোঃ শরীফ, জুবায়ের আহম্মদ জনি এ ত্রাণ বিতরণ কাজ পরিচালনা করেন।

এ সময় ফতেপুর পূর্ব ইউপি চেয়ারম্যান আজমল হোসেন চৌধুরী, উপজেলা যুবলীগের সদস্য আহম্মদ উল্লাহ চৌধুরী, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা মোঃ শরীফ মোঃ জুবায়ের আহম্মদ জনিসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
একই দিন সকালে দ্বিতীয় পর্যায়ে উপজেলার কলাকান্দা ইউনিয়ন আ’লীগের কার্যালয়ের সামনের মাঠে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কর্মহীন ও অসচ্ছল সাড়ে তিন শতাধিক পরিবারের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন কলাকান্দা ইউপি চেয়ারম্যান সোবহান সরকার শুভা, ২নং ওয়ার্ড আ’লীগ সভাপতি ও ইউপি সদস্য মোহন ছৈয়াল, ইউনিয়ন কৃষক লীগের সভাপতি বাবুল সরকার, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আদম আলী সরকার, ইউপি সদস্য হুমায়ুন ছৈয়াল, ছাত্রলীগ নেতা মাহফুজ সরদারসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) প্রাদুর্ভাবে সৃষ্ট চলমান সংকট শিগগিরই কেটে যাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা সাবেক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী (মায়া) বীর বিক্রম।

শনিবার সকালে উপজেলার কলাকান্দা ইউনিয়নে এবং দুপুরে ফতেপুর পূর্ব ইউনিয়নে কর্মহীন অসহায় মানুষের মধ্যে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে ঢাকা থেকে ভিডিওবার্তায় সাবেক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া মায়া বীর বিক্রম তিনি এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

তিনি বলেন, করোনায় সৃষ্ট সংকটের কারণে বিশ্বের প্রায় সব দেশেই চলছে জরুরী অবস্থা। কর্মহীন হয়ে পড়েছে পৃথিবী। এ অবস্থার মধ্যেও বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে মাথা উঁচু করে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করে যাচ্ছে।

উদ্ভুত পরিস্থিতি মোকাবিলায় জনগণকে ঘরে থাকার আহ্বান জানিয়ে মায়া চৌধুরী বলেন, দেশে একটি সংকটকাল অতিবাহিত হচ্ছে। তবে করোনা ভাইরাস সংক্রমণরোধে মানুষ গৃহবন্দি জীবন-যাপন করলেও বর্তমান সরকার অসহায় মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দিচ্ছে খাদ্য সহায়তা। এ সরকারের আমলে একজন মানুষও না খেয়ে থাকবে না।

সাবেক মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী (মায়া) বীর বিক্রম আরও বলেন, সারা বিশ্বের মতো করোনা দুর্যোগ আমাদেরও আক্রমণ করেছে। সবকিছু স্থবির হয়ে পড়েছে। এই মহাসংকট থেকে পৃথিবী ও আমাদের মোকাবেলা করে রক্ষা পেতে হবে। রক্ষা পাবই ইনশাআল্লাহ।

প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে আমরা সবাই আপনাদের পাশে আছি। সুখ দুঃখ আমরা সবাই ভাগ করে বাঁচতে চাই। আবারও আমাদের দেশ স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় এগোবে বলেও সাবেক মন্ত্রী প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

তিনি বলেন, আমাদেরকেও ঘরে থেকে করোনা প্রতিরোধ করতে হবে। নয়তো মহামারী আকার ধারন করবে। তাই সংক্রামণ রোধে সরকারি নির্দেশ মেনে সবাই ঘরে থাকুন। বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস রোধে আপনারা ঘরে থাকুন। শেখ হাসিনার বাংলাদেশে কেউ না খেয়ে মরবে না।

তিনি আরো বলেন, বাঙালি বীরের জাতি, এই জাতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের নেতৃত্বে একাত্তরে যুদ্ধ করে দেশের স্বাধীনতা ছিনিয়ে এনেছে। করোনা ভাইরাসের এই সংকটকালেও বীর বাঙালি বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে দুঃসময়ের মহাসাগর পাড়ি দেবে।

উল্লেখ্য বিশ্বব্যাপী নভেল করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের ফলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় সাবেক দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী (মায়া) বীর বিক্রমের নিজস্ব অর্থায়নে করোনা ভাইরাসের সঙ্কট মোকাবিলায় অসহায় দরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। মায়া চৌধুরীর পক্ষ থেকে চাঁদপুর-নির্বাচনী এলাকা (মতলব উত্তর-মতলব দক্ষিণ) ১০ হাজার হতদরিদ্র ও কর্মহীনদের মাঝে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার বিতরণ করা হচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে শনিবার মতলব উত্তর উপজেলার দুটি ইউনিয়নে এ খাদ্যসামগ্রী ও ইফতারসামগ্রী বিতরণের কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

অন্যদিকে শনিবার সকালে দ্বিতীয় পর্যায়ে উপজেলার কলাকান্দা ইউনিয়ন আ’লীগের কার্যালয়ের সামনের মাঠে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কর্মহীন ও অসচ্ছল সাড়ে তিন শতাধিক পরিবারের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন কলাকান্দা ইউপি চেয়ারম্যান সোবহান সরকার শুভা, ২নং ওয়ার্ড আ’লীগ সভাপতি ও ইউপি সদস্য মোহন ছৈয়াল, ইউনিয়ন কৃষক লীগের সভাপতি বাবুল সরকার, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আদম আলী সরকার, ইউপ সদস্য হুমায়ুন ছৈয়াল ছাত্রলীগ নেতা মাহফুজ সরদার’সহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন