শাহরাস্তি ইউএনও’র দায়িত্বহীনতায় বঙ্গবন্ধু-বঙ্গমাতা জেলা টুর্নামেন্টের প্রথম খেলা পন্ড!

নিজস্ব প্রতিবেদক :
চাঁদপুরে ওয়াক ওভার দিয়ে শুরু হলো বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টায় উদ্বোধনী খেলায় অংশ নেওয়ার কথা ছিল ফরিদগঞ্জ উপজেলা বালিকা ফুটবল দল বনাম শাহরাস্তি উপজেলা বালিকা ফুটবল দল। কিন্তু নির্ধারিত সময়ের পরেও শাহরাস্তি দলের খোলোয়াররা মাঠে উপস্থিত না হওয়ায় ফরিদগঞ্জ ফুটবল দলকে জয়ী ঘোষণা করেন ম্যাচ রেফারি।

শাহরাস্তি বালিকা দলের মাঠে উপস্থিত না হওয়া প্রসঙ্গে শাহরাস্তি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শিরিন আক্তার বলেন, শাহরাস্তির মেয়েরা মাঠে ফুটবল খেলতে আগ্রহী নয়। অভিভাবকরাও তাদের মেয়েদের খেলাধুলা করাতে মাঠে যেতে দেয় না। তাই টিম গঠন করা যায়নি। গত বছরও শাহরাস্তি উপজেলার বালিকা দল টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করেনি বলে তিনি দাবি করেন।

এ ব্যাপারে ফরিদগঞ্জ উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক নূরুন নবী নোমান বলেন, সকল প্রস্তুতি নিয়ে যখন মাঠে এসে দেখি প্রতিপক্ষ নেই। এর চেয়ে হতাশার আর কিছুই হতে পারে না। এভাবে ওয়াক ওভার পাওয়া কাম্য ছিল না।

ফরিদগঞ্জ উপজেলা বালিকা দলের অধিনায়ক মারিয়া আক্তার বলেন, খেলার জন্য আমরা কষ্ট করে অনুশীলন করেছি। কিন্তু খেলতে না পেরে আমরা অনেক হতাশ। মাঠে খেলে হারলেও কোন কষ্ট থাকতো না।

এ ব্যাপারে চাঁদপুর জেলা ফুটবল উপ-কমিটির সাধারণ সম্পাদক শাহির হোসেন পাটোয়ারী বলেন, শাহরাস্তি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার অদূরদর্শিতা কারণে এই অবস্থা হয়েছে। এটি সরকারি টুর্নামেন্ট। এই টুর্নামেন্টে প্রতিবছর সকল দল অংশগ্রহণ করে থাকে। টিম গঠন না করতে পারার কোন যুক্তি থাকতে পারে না।

জেলা ক্রীড়া অফিসার মো. তারিকুল ইসলাম বলেন, গত ২০ মে প্রত্যেক উপজেলায় খেলার বিষয়ে অবহিত করে চিঠি প্রদান করা হয়েছে। ওয়াক ওভারের ব্যাপারে তিনি বলেন, এই টুর্নামেন্টে কোন সময়ই ওয়াক ওভার দেয়নি কোন দল। গত বছরও শাহরাস্তি উপজেলার বালিকা দল খেলায় অংশ নিয়েছে।

জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ বলেন, প্রতিটি উপজেলা কর্মকতাকে টুর্নামেন্টে অংশ নিতে বলা হয়েছে। কিন্তু শাহরাস্তি উপজেলায় মেয়েরা খেলায় আগ্রহী না থাকায় টিম গঠন করতে পারেনি। তাই উদ্বোধনী খেলায় ওয়াক ওভার পেয়েছে প্রতিপক্ষ দল। বিষয়টি আমি দেখছি।

ছেলেদের উদ্বোধনী খেলায় মুখোমুখি হয় ফরিদগঞ্জ উপজেলা দল বনাম শাহরাস্তি উপজেলা দল। এতে ফরিদগঞ্জ দল ১-০ গোলের ব্যবধানে জয়লাভ করে।
টুর্নামেন্টে ৮ উপজেলা ও চাঁদপুর পৌরসভাসহ ছেলে ও মেয়েদের ১৮টি দল অংশ নেয়। আগামী ৪ জুন টুর্নামেন্টর ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

এদিকে উদ্বোধনী খেলা অনুষ্ঠিত না হওয়া তথা পন্ড হওয়ার জন্য শাহরাস্তি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে দায়ী করেছেন মাঠে উপস্থিত ক্রীড়ামোদীরা। তারা বলেন, জাতীয় পর্যায়ের একটি টুর্নামেন্টে উপজেলা থেকে কোনো টিম দিতে না পারায় উপজেলা প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তা হিসেবে তার ব্যর্থতা। তাছাড়া তিনি বিষয়টি আগে থেকে জেলা প্রশাসন বা ক্রীড়া সংস্থাকে জানাননি। এ নিয়ে মাঠে উপস্থিত প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তা ও অতিথিবৃন্দও অসন্তোষ প্রকাশ করেন।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।