শেখ হাসিনার সরকার উন্নয়ন ও শিক্ষাবান্ধব সরকার : সাজেদুল হোসেন চৌধুরী দিপু

দশানী মোহনপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভা

নিজস্ব প্রতিবেদক :
মতলব উত্তরের দশানী মোহনপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির অন্যতম সদস্য, বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ ও শিক্ষানুরাগী সাজেদুল হোসেন চৌধুরী দিপু বলেছেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার উন্নয়ন ও শিক্ষাবান্ধব সরকার। এই সরকারের অধীনে যত স্কুল, কলেজ ও মাদরাসা সরকারি হয়েছে অতীতের কোনো সরকারের আমলে তা হয়নি।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এসে একটি যুগোপযোগী ও আন্তর্জাতিক মানের শিক্ষানীতি প্রণয়ন করেছেন। যার ফলে দেশের ছেলে-মেয়েরা আন্তর্জাতিক বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশ নিচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে আজ স্বপ্নের পদ্মা সেতু প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান চেয়েছিলেন ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে। বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে কাজ করছে। তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণের লক্ষ্যে সরকারের ন্যায় সবাই একযোগে কাজ করলে দেশের যেমন উন্নয়ন হবে ও তেমনি ঘটবে শিক্ষার প্রসার।

দিপু চৌধুরী শনিবার বিকেলে মতলব উত্তর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী দশানী মোহনপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির দ্বিতীয় সভায় এসব কথা বলেন। তিনি সভার শুরুতে সকলকে পবিত্র ঈদুল আযহার আগাম শুভেচ্ছা জানিয়ে বিদ্যালয়ের লেখাপড়ার সুষ্ঠু পরিবেশ ও মেধাভিত্তিক শিক্ষার উপর গুরুত্বারোপ করেন। তরুণ প্রজন্ম আমাদের সম্পদ। তাদেরকে এখনই তৈরি করতে হবে। তিনি অত্র বিদ্যালয়ের লেখার পড়ার মানোন্নয়নে অবকাঠামোসহ বিভিন্ন সম্যসা সমাধানের আশ্বাস প্রদান করেন।

বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য সচিব স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মো. সিদ্দিকুর রহমানের পরিচালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির বিদ্যুৎসাহী সদস্য মো. হাবিবুর রহমান হাফিজল তফাদার, অভিভাবক সদস্য মো. কাউছার আহমেদ, রফিক মৃধা, সংরক্ষিত মহিলা অভিভাবক সদস্য মনোয়ারা বেগম, সাধারণ শিক্ষক প্রতিনিধি মো. শাহজাহান মিয়া, বাবু মন্টু কুমার মন্ডল, ফজুল হক, কাজী জাকির হোসেন ও সংরক্ষিত মহিলা শিক্ষক প্রতিনিধি পার্বতী রাণী ভৌমিক প্রমুখ।

ম্যানেজিং কমিটির দ্বিতীয় সভায় শুরুতে স্কুলের শিক্ষক,ম্যানেজিং কমিটির অভিভাবক সদস্য ও শিক্ষর্থীদের পক্ষ থেকে বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির অন্যতম সদস্য সাজেদুল হোসেন চৌধুরী দিপুকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানানো হয়। পুরো বিদ্যালয়কে তার ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে তিনি সিসি ক্যামেরার আওতায় আনার ব্যবস্থা গ্রহণ করায় সভাপতি সাজেদুল হোসেন চৌধুরী দিপুকে সভায় সকল সদস্য সর্বসম্মতিক্রমে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।

এরপর নবনির্বাচিত শিক্ষানুরাগী সদস্য হাবিবুর রহমান হাফিজল তফাদারকে স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সিদ্দিকুর রহমান স্কুলের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান।

এরপর সভার কার্যক্রম শুরু হয়। বিদ্যালয়ের গভর্নিংবডির দ্বিতীয় সভার অলোচ্যসূচির মধ্যে ছিল কমিটির নানা দিকনির্দেশনাসহ বিদ্যালয়ের সার্বিক উন্নয়ন এবং পড়াশুনার মান উন্নয়নে বিভিন্ন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।