২০৪১ সালে বাংলাদেশ হবে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা : পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী

বোরহান উদ্দিন ডালিম :
পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম বলেন, ২০৪১ সালে বাংলাদেশ হবে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ। যার স্বপ্ন দেখেছিল জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। মুজিবকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সে রকম পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন। সোনার বাংলা বলতে বুঝানো হয়েছে যে দেশে বেকারত্ব থাকবে না, খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ থাকবে, মাথাপিচু আয় বৃদ্ধি পাবে এবং সাধারণ মানুষ উন্নত সুযোগ-সুবিধা পাওয়া। মুক্তিযোদ্ধারা দেশের শ্রেষ্ঠ সন্তান। তাদের কারণে আজ আমরা স্বাধীন দেশ পেয়েছি। তাদের ঋণ কোন দিনই শেষ হবে না। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন মুক্তিযুদ্ধের মহানায়ক।

বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযোদ্ধাদেরকে নিয়ে বিভিন্ন বই প্রকাশিত হয়েছে, যা পরলে তরুণ প্রজন্ম জাতির জনক ও মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানতে পারবে। মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পের মাধ্যমে চিকিৎসা করা অতি প্রয়োজন।
তিনি আরো বলেন, মতলব উত্তর উপজেলায় পথ শিশু মুক্ত করতে সকল পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। অসহায় প্রতিবন্ধী ও বেদে সম্প্রদায়, তারাও আমাদের মতো মানুষ। তাদের প্রতিও খেয়াল রাখতে হবে। তাদের মেধাবী শিক্ষার্থীদের শিক্ষার মান বৃদ্ধির লক্ষে উপবৃত্তির ব্যাবস্থা করা হয়েছে।

জাতির জনকের কনিষ্ঠ সন্তান শেখ রাসেলসহ তার পরিবারকে যারা নৃশংস ভাবে হত্যা করেছে তাদের বিচার এ মাটিতেই হবে। এ হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত তাদের কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না।

বুধবার সকালে পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম সকালে মতলব উত্তর উপজেলার ছেংগারচর সরকারি ডিগ্রি কলেজে মুক্তিযোদ্ধা ও বঙ্গবন্ধু বিষয়ক বই মেলা উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য শেষে বই বিতরণ, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে মুক্তিযোদ্ধা ভিত্তিক লাইব্রেরি এবং ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প উদ্বোধন, মতলব উত্তরকে পথশিশু মুক্ত উপজেলা হিসেবে ঘোষনার লক্ষ্যে প্রস্তুতিমূলক সভা,প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী অনগ্রসর ও বেদে জনগোষ্ঠিকে উপবৃত্তির চেক প্রদান, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেলের ৫৭তম জন্ম বার্ষিকী উদযাপনে বিভিন্ন ইভেন্টে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ, অনলাইন বিজ্ঞান বিষয়ক কুইজ প্রতিযোগিতা ও বিজ্ঞান অলিম্পিয়াডের বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর-২ আসনের সাংসদ ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ অ্যাড. নূরল আমিন রুহুল, মতলব উত্তর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ কুদ্দুস। আরো বক্তব্য রাখেন ছেংগারচর সরকারি ডিগ্রি কলেজর ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ সরকার মোহাম্মদ ইয়াসিন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মতলব উত্তর উপজেলা নির্বাহী অফিসার গাজী শরীফুল হাসান ও পরিচালনা করেন ছেংগারচর সরকারি ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক আহসান উল্লাহ সরকার।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন মতলব উত্তর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সিরাজুল ইসলাম লস্কর, শহীদ উল্লাহ মাস্টার, ছেংগারচর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসান কাইয়ুম চৌধুরী, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রতন ফরাজী, আওয়ামী লীগের উপ-কমিটির যুগ্ম সম্পাদক আরিফ উল্লাহ সরকার, উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান শাহ মোহাম্মদ আল-আমিন, উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক একেএম আজাদ, গুলশান থানা যুবলীগের সহ-সভাপতি মাহবুবুর রহমান সেলিম, মতলব উত্তর উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন সরকার মুকুল, সাবেক ছাত্রনেতা অ্যাড. মহসিন মিয়া মানিক প্রমুখ।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন