২৯ বছর পর বাবা-মায়ের সন্ধান পেল চাঁদপুরের মাসুদ

নিজস্ব প্রতিবেদক
শিশুকালে হারিয়ে যাওয়া মাসুদ ২৯ বছর পর বাবা-মায়ের সন্ধান পেলেন। গত বৃহস্পতিবার জনপ্রিয় রেডিও উপস্থাপক আর জে কিবরিয়ার ‘আপন ঠিকানা’ অনুষ্ঠানে তিনি মাসুদেও হারিয়ে যাওয়া বাবা-মাকে স্টুডিওতে নিয়ে আসেন। অনুষ্ঠানে মাসুদের সাথে তার পরিবারের মিল ঘটিয়ে দেয় আরজে কিবরিয়া।

দীর্ঘ ২৯ বছর পর নিজের ছেলেকে পেয়ে আবেগে আপ্লুত হয়ে কান্নায় ভেঙে পরে মাসুদের বাবা-মা। যদিও পরিচয় নিশ্চিত হওয়ার জন্য উভয়ের বিভিন্ন স্মৃতি ও তথ্য মেলানো হয়। সবুজ বর্তমানে তার বাবা-মায়ের সঙ্গে নিজ বাড়িতে অবস্থান করছেন।

মাসুদ মতলব উত্তর উপজেলার দেওয়ানজীকান্দি গ্রামের বাচ্চু মোল্লার বড় ছেলে। ১৯৯০ কিংবা ১৯৯১ সালে দিকে তার চাচা খোরশেদ মোল্লা সাথে ঢাকা মুগদা পাড়ায় বেড়াতে আসে।

ঢাকা আসার একদিন পর চাচাতো ভাই বোনদের সাথে রাস্তায় খেলতে খেলতে হারিয়ে যায় মাসুদ। ৫/৬ বছরের মাসুদ তখন অনেক খুঁজেও নিজের চাচার বাসা আর চিনতে পারেনি। পরিবারের কতো আহাজারি তখনকার সময় সকল পত্রিকায় হারানো বিজ্ঞপ্তি দিয়েও ঢাকা শহরের বিভিন্ন স্থানে মাইকিং করেও খোঁজ মিলেনি মাসুদের।

দীর্ঘ তিন দশক পুত্র শোকে ভুগে পরিবারটি। কিন্তু দীর্ঘ তিন দশক পর হারানো সূর্য আবার খুঁজে পাবে কে জানতো। কিছু দিন আগে আরজে কিবরিয়ার ব্যক্তিগত ইউটিউব চ্যালেন থেকে প্রকাশিত “আপন ঠিকনা” নামক একটি অনুষ্ঠানে নিজের আপন ঠিকানা খুঁজতে আসে মাসুদ। সেখানে এসে নিজের হারিয়ে যাওয়া অতীতের স্মৃতি যতটুকু মনে ছিল তা তুলে ধরে।

৫/৬ বছরের শিশু মাসুদ কিছু স্মৃতি মনে রাখতে পারলেও, মনে রাখতে পারেনি নিজের জন্মস্থান চাঁদপুরের কথা। হারিয়ে যাওয়ার পর সে এতটুকু ই বলতে পেরেছিলো যে তার গ্রামের বাড়ি কুষ্টিয়া এবং সে চাচার সাথে লঞ্চে করে ঢাকা এসেছে। এরপর হারিয়ে যায় পরিবার থেকে ২৯টি বছর।

আরজে কিবরিয়ার অনুষ্ঠান “আপন ঠিকানা” ১৬ নাম্বার এপিসোড প্রকাশিত মাসুদের পরিবার হারানোর কথা বলে। পরে তা জানতে পারে মাসুদের পরিবার। আরো জানাযায় যে, মাসুদ যে মা,বাবার কাছে এই দীর্ঘ ২৯ বছর পর্যন্ত যাদের কাছে বড় হয়েছে তার সেই মা, বাবা কেউ ই বেঁচে নেই।

অনুষ্ঠানটি দেখার পর নানা মাধ্যমে মাসুদের পরিবার যোগাযোগ কওে আরজে কিবরিয়া এবং মাসুদের সাথে। অবশেষে আরজে কিবরিয়ার স্টুডিও তে মাসুদের সাথে তার পরিবারের মিল ঘটিয়ে দেয় আরজে কিবরিয়া। যদিও অনেক প্রমাণ বা তথ্যাদি হাতে পেয়েই সে গত শনিবার ( ২৩ এপ্রিল ২০২১) দীর্ঘ ২৯ বছর পর পরিবারের কাছে মাসুদের পরিচয় করিয়ে দেয়। মাসুদের জীবনের হারিয়ে যাওয়া ঠিকানা বুঝিয়ে দেয়।

দীর্ঘ ২৯ বছর পর নিজের ছেলে কে পেয়ে আবেগে আপ্লুত হয়ে কান্নায় ভেঙে পরে মাসুদের মা-বাবা। দীর্ঘ ২৯ বছর পর হারানো ছেলেকে পেয়ে অনেক খুশি মাসুদের পরিবার। যা ভাষায় প্রকাশ করা যাবে না।

বাবা-মায়ের কোলে ফিরে আসা মাসুদ বলেন, এতোগুলো বছর পর হারিয়ে যাওয়া বাবা-মাকে ফিরে পেয়েছি সে আনন্দ এবং উপলব্ধির বিষয়টি মুখের ভাষায় প্রকাশ করা যাবে না। বাবা-মায়ের সঙ্গে কয়েকটি দিন কাটানোর ইচ্ছা আছে।

মানুষের কৌতূহল সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আসার পর থেকেই আশপাশের এবং বিভিন্ন গ্রামের মানুষ এক নজর দেখার জন্য ভিড় জমাচ্ছে বাড়িতে সারা রাত বাড়ির উঠোনে বসে ছিলাম। বাবা কি ফিরে পেয়েছি পরিবার ফিরে পেয়েছি খুব ভালো লাগছে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।