চাঁদপুরে অগ্নিদগ্ধ হয়ে যুবকের মৃত্যু

শিমুল হাছান :
চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে অগ্নিদগ্ধ হয়ে যুবকের মৃত্যু হয়েছে। তার নাম অমর চন্দ্র সূত্রধর। তার শারীরিক অবস্থার অবনতি দেখে চাঁদপুর জেনারেল (সদর) হাসপাতাল থেকে শেখ হাসিনা বার্ণ ইউনিট হাসপাতাল প্রেরণ করা হয়েছিল। শুক্রবার সকালে অগ্নিদগ্ধের ঘটনাটি ঘটে উপজেলার পাইকপাড়া ইউনিয়নের গাজীপুর গ্রামের সূত্রধর বাড়িতে।

সরেজমনি জানা গেছে, সকালে ঘুম থেকে উঠে অমর চন্দ্র সূত্রধর (২৩) পার্শ্ববর্তী গাজীপুর বাজারে যান। সেখানে তিনি নাস্তা করেন। এরপর তিনি বাড়ি যান। সকাল সাড়ে ৮টার দিকে অমরের মা “বাবা কি করছ” বলে চিৎকার করেন ও ছেলেকে জড়িয়ে ধরেন। চিৎকার শুনে, পার্শ্ববর্তী ঘরের লোকজন ছুটে যান। সবাই মিলে, আগুন নেভান।

এরপর তাকে নিয়ে যাওয়া হয় চাঁদপুর জেনারেল (সদর) হাসপাতালে। প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে কর্তব্যরত চিকিৎসক শেখ হাসিনা বার্ণ ইউনিট হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখানে চিকিৎসারত অবস্থায় রাত ১০টার দিকে তিনি মারা গেছেন বলে এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে।

এদিকে শুক্রবার দুপুরে ওই বাড়িতে গিয়ে ঘরে তালা মারা দেখা গেছে। প্রতিবেশীরা বলেছেন, আমরা চিৎকার শুনে এগিয়ে যাই। কিন্তু ততক্ষণে তার সমস্ত শরীর পুড়ে গেছে। নেভাতে গিয়ে মা’র শরীরের আংশিক পুড়ে গেছে। তবে কিভাবে আগুন লেগেছে তারা কেউ জানাতে পারেননি। অমর হয়তো নিজেই গায়ে আগুন লাগাতে পারে বলে আশপাশের লোকজন মন্তব্য করেছেন।

সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য জসিম উদ্দিন পাঠান মুঠোফোনে বলেছেন, অমর সূত্রধর গায়ে পেট্রোল ঢেলে নিজেই আগুন লাগাতে পারে। সে কিছুটা মানসিক অস্থিরতায় ভুগছিলেন। আমরের বাবা রসরাজ সূত্রধর পেশায় কাঠমিস্ত্রি। ছেলে অমর চন্দ্র সূত্রধরও কাঠমিস্ত্রির কাজ করতেন।

এ ব্যাপারে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল (সদর) হাসপাতালের আরএমও আসিবুর রহমান জানিয়েছেন, অমর সূত্রধরের শরীরের ৭০ ভাগ পুড়ে গেছে। তার মায়ের শরীর সামান্য পুড়েছে। অমরের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটায় তাকে ঢাকা প্রেরণ করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।