চাঁদপুরে অনন্যার নাট্যোৎসবের সমাপনী দিনে বর্ণচোরার নাটক ‘ছি’ মঞ্চস্থ

কবির হোসেন মিজি :
বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনভুক্ত ও চাঁদপুরের ঐতিহ্যবাহী নাট্য সংগঠন অনন্যা নাট্যগোষ্ঠীর গৌরবের ৪৬ বছরপূর্তি উপলক্ষে ৪ দিনব্যাপী নাট্যেৎসব শেষ হয়েছে।

‘সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও মুজিববর্ষ শুভ হোক’ এই প্রত্যাশায় গত ১০ নভেম্বর বুধবার সন্ধ্যায় চাঁদপুর জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে উৎসব শুরু হয়।

প্রধান অতিথি হিসেবে ৪ দিনব্যাপী নাট্যেৎসব উদ্বোধন করেন চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র অ্যাডভোকেট জিল্লুর রহমান জুয়েল। শুক্রবার ছিল উৎসবের সমাপনী দিন।

সমাপনী দিনে বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনভুক্ত চাঁদপুরের আরেক ঐতিহ্যবাহী নাট্য সংগঠন বর্ণচোরা নাট্যগোষ্ঠীর পরিবেশনায় ‘ছি’ নাটকটি মঞ্চস্থ হয়। অরুণ সরকারের রচনায় ও শরীফ চৌধুরীর নির্দেশনায় ‘ছি’ নাটকটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেন বর্ণচোরা নাট্যগোষ্ঠীর শিল্পীরা। এদিন শিল্পকলা একাডেমিতে দর্শকদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো।

এর পূর্বে ৪ দিনব্যাপী নাট্য উৎসবের উদ্বোধনী দিন ও ২য় দিন অনন্যা নাট্যগোষ্ঠীর পরিবেশনায় মঞ্চস্থ হয় ইঙ্গিত নাটকটি। এস এম সোলায়মানের রচনায় ও প্রবীর চৌধুরীর নির্দেশনায় এবং শহীদ পাটোয়ারী ও হারুন আল রশিদের সহকারী নির্দেশনায় ইঙ্গিত নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেন অনন্যা নাট্যগোষ্ঠীর অভিনয় শিল্পীরা।

উৎসবের ৩য় দিন বৃহস্পতিবার কুমিল্লা জেলা শিল্পকলা একাডেমীর রেপার্টরি নাট্যদলের পরিবেশনায় মঞ্চস্থ হয় স্বল্পদৈর্ঘ্য দেশীয় যাত্রাপালা সমশের গাজীর বিদ্রোহ। আহাম্মেদ কবিরের রচনায় ও মামুনুল হকের যাত্রারূপ ও নির্দেশনায় সমশের গাজীর বিদ্রোহ স্বল্পদৈর্ঘ্য দেশীয় যাত্রাপালায় অভিনয় করেন কুমিল্লা রেফার্টরি নাট্যদলের শিল্পীরা।

শুক্রবার ছিল অনন্যা নাট্য গোষ্ঠীর গৌরবের ৪৬ বছর পূর্তি উৎসব উপলক্ষে আয়োজিত ৪ দিনব্যাপী নাট্যোৎসবের সমাপনী দিন। আর এদিন মঞ্চস্থ হয় বর্ণচোরা নাট্যগোষ্ঠীর পরিবেশনায় ‘ছি’ নাটকটি। যা উপভোগ করার জন্য চাঁদপুর শিল্পীকলা একাডেমিতে নাটক প্রেমীদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।