চাঁদপুরে নদী তীরে সরকারি খাস জমির মাটি কাটায় অর্ধলাখ টাকা জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক :
চাঁদপুর শহরতলির গাছতলা এলাকায় সরকারি খাস জমিতে অবৈধ ভাবে ভেকু দিয়ে মাটি কাটার দায়ে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে চাঁদপুর-রায়পুর সড়কের নিজ গাছতলা এলাকায় মায়ের দোয়া এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী মোহাম্মদ লিটন পাঠানকে এই অর্থদন্ড করেন চাঁদপুর সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ হেলাল চৌধুরী।

জানা যায়, চাঁদপুর শহরতলীর নিজ গাছতলা এলাকার চাঁদপুর-রায়পুর ব্রিজের দক্ষিণ পশ্চিম পাশে অবস্থিত মায়ের দোয়া এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী মোহাম্মদ লিটন পাঠান দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে ডাকাতিয়া নদীর তীরবর্তী স্থানে সরকারি খাস জমি কোন প্রকার লিজ না নিয়ে অবৈধভাবে ভোগদখল করে আসছেন। বুধবার সকালে তিনি সরকারিভাবে কোনো প্রকার অনুমোদন না নিয়ে অবৈধভাবে নদীর তীরবর্তী স্থানের সরকারি খাস জমি (ফসলী জমিতে) ভেকু লাগিয়ে মাটি কাটা শুরু করেন।

লিটন পাঠানের এমন সরকারি খাস জমিতে অবৈধভাবে মাটি কাটার খবর পেয়ে চাঁদপুর সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ হেলার চৌধুরীসহ বেশ কয়েকজন সহকারি কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে ছুটে যান। তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ভেকু দিয়ে মাটি কাটার বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে নদীর তীরবর্তী এলাকার খাস জমিতে অবৈধভাবে মাটি কাটার দায়ে লিটন পাঠানকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। একই সাথে ওইস্থানে অবৈধভাবে দখল করে রাখা সরকারি খাস জমি এক দিনের মধ্যে ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশনা প্রদান করেন।

এ বিষয়ে চাঁদপুর সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. হেলাল চৌধুরীর সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি বলেন, গাছতলা ব্রিজের নিকট ডাকাতিয়া নদীর তীরবর্তী স্থানে সরকারি খাস জমিতে লিটন পাঠান নামে এক ব্যক্তি ভেকু দিয়ে মাটি কাটার খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে যাই। কোন প্রকার লিজ না নিয়েই তিনি সম্পূর্ণ অবৈধ ভাবে নদী তীরবর্তী স্থানে মাটি কাটার দায়ে আমরা মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। একই সাথে একদিনের মধ্যে তার অবৈধ দখল ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।