চাঁদপুরে সিএনজির ধাক্কায় ট্যাংক লরির নিচে মোটরসাইকেল : হতাহত ৩

নিজস্ব প্রতিনিধি :
চাঁদপুরের হাজীগঞ্জের বাকিলা এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় সৌরভ হোসেন (২০) নামের এক মোটরসাইকেল চালক মারা গেছেন। এ ঘটনায় নাঈম হোসেন (১৯) নামের অপর মোটরসাইকেল আরোহী ও মোবারক হোসেন (৪৫) নামের সিএনজি অটোরিক্সার চালক আহত হয়েছেন। সোমবার (১৪ মার্চ) রাত ৮টার দিকে কুমিল্লা-চাঁদপুর আঞ্চলিক সড়কের বাকিলা ইউনিয়নের বলাই স্যারের বাড়ির সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত সৌরভ হোসেন চাঁদপুর সদর উপজেলার কুমারডুগি গ্রামের বরকন্দাজ বাড়ির মিন্টু মিয়ার ছেলে। আহত মোটরসাইকেল আরোহী নাঈম হোসেন একই গ্রামের সরকার বাড়ির আব্দুল মান্নানের ছেলে। অপর আহত সিএনজি অটোরিক্সার চালক মোবারক হোসেন চাঁদপুর পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের খলিশাডুলী এলাকার দর্জি বাড়ির মৃত মফিজ উদ্দিনের ছেলে।

আহত মোটরসাইকেল আরোহী নাঈম জানান, মোটরসাইকেলযোগে কুমারডুগি থেকে কৈয়ারপুল যাওয়ার পথে সিএনজি অটোরিক্সাটি তাদের মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দিলে মোটরসাইকেলটি সড়কে ছিটকে পড়ে। এ সময় চাঁদপুরমুখী একটি তেলবাহী ট্যাংক লরির তাদের চাপা দেয়।

অপরদিকে সিএনজি অটোরিক্সার চালক মোবারক হোসেন জানান, তিনি ৫জন যাত্রী নিয়ে কচুয়ার উদ্দেশ্যে হাজীগঞ্জের দিকে যাচ্ছিল। এ সময় একটি ট্যাংক লরি মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দিলে মোটরসাইকেলটি তার সিএনজিচালিত স্কুটারের উপর পড়ে।

ঘটনাস্থলেই মারা যান মোটরসাইকেলের চালক সৌরভ। এ সময় সড়কে যানজটের সৃষ্টি হয়। পরে স্থানীয়রা আহত মোটরসাইকেল আরোহী নাঈম ও সিএনজি অটোরিক্সার চালক মোবারক হোসেনকে উদ্ধার করে হাজীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করে।

খবর পেয়ে হাজীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক মো. মহসিন দূর্ঘটনাস্থল থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধারপূর্বক সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক করেন। একই সময়ে হাজীগঞ্জ থানার সহকারী পরিদর্শক মো. নাজিম উদ্দিন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে আহতদের খোঁজখবর নেন।

এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. গোলাম মাওলা বলেন, আহতের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ জোবাইর সৈয়দ জানান, নিহতের মরদেহ, দুর্ঘটনাকবলিত মোটরসাইকেল ও সিএনজি অটোরিক্সাটি থানা হেফাজতে নিয়ে আসা হয়েছে।

শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।